সংবাদ ব্রিফিং

রোহিঙ্গা নির্যাতনকে কফি আনান ‘গণহত্যা’ বলতে চান না






gorai24-kofi-anan
জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান বলেছেন, মিয়ানমারে রোহিঙ্গা সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে যে সহিংসতা চলছে, তাকে তিনি ‘গণহত্যা’ হিসেবে বর্ণনা করতে চান না।

রাখাইন রাজ্যে এক সফর শেষে কফি আনান বিবিসিকে বলেন, ‘আমি মনে করি, সেখানে উত্তেজনা আছে, সেখানে যুদ্ধ চলছে। কিন্তু আমি বিষয়টিকে সেদিকে নিয়ে যেতে চাই না, অনেকে যা করেছেন।’
গতকাল মঙ্গলবার বিবিসি অনলাইন এ খবর প্রচার করে। এর আগে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক রাখাইনদের ওপর চলা সহিংসতাকে ‘গণহত্যা’ বলে উল্লেখ করেন।

গত আগস্টে রাখাইন প্রদেশের পরিস্থিতি দেখার জন্য অং সান সু চি জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনানকে প্রধান করে একটি কমিশন গঠনের অনুরোধ জানান। রাখাইন রাজ্যে সংখ্যাগুরু বৌদ্ধদের পাশাপাশি বসবাস করে রোহিঙ্গা মুসলিমরা। গত অক্টোবরে জঙ্গি হামলায় মিয়ানমারের নয় সীমান্তরক্ষী নিহত হওয়ার পর সেনাবাহিনী সেখানে অভিযান চালায়। হত্যা, ধর্ষণ ও লুটপাটের মতো ঘটনা ঘটে। মোট ৮৬ জন নিহত হয় বলে বিভিন্ন খবরে বলা হয়। বাস্তুচ্যুত হয় ৩০ হাজারের মতো রোহিঙ্গা। দুই মাসের মধ্যে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে প্রায় ২১ হাজার ৯০০ জন।

২ ডিসেম্বর কফি আনান রাখাইন রাজ্য পরিদর্শন করেন।
কফি আনান বিবিসিকে বলেন, ‘আপনি অনুভব করবেন উভয় সম্প্রদায়ের মানুষই ভয়ের মধ্যে আছে। সেখানে ভয় আছে, আছে অবিশ্বাস। ভয় তীব্র হয়েছে। কিন্তু আমাদের ভয় কমানোর একটা পথ বের করতে হবে এবং সেখানকার সম্প্রদায়গুলোর মধ্যে সম্পৃক্ততা বাড়াতে উৎসাহ দিতে হবে।’
কফি আনান বলেন, পর্যবেক্ষকদের অবশ্যই গণহত্যা শব্দটি ব্যবহারে ‘খুবই, খুবই সতর্ক’ থাকতে হবে।