সংবাদ ব্রিফিং

সবজির বাহারে নবাবী স্বাদ






banna-gorai24
ভেজিটেবল দম বিরিয়ানি! হ্যাঁ, মাংস ছাড়াও কিন্তু বিরিয়ানি হয়! খেতে হালকা ,স্বাদেও দারুণ হয় সবজির বিরিয়ানি । সাথে রাখতে পারেন একটি ডিম সেদ্ধ , রায়তা কিংবা একটুখানি আচার। ব্যস, মন আর পেট দুটোকেই খুশি করতে আর কিচ্ছু লাগবে না। চলুন জেনে নিই সায়মা সুলতানার রেসিপিটি।

উপকরণ
আলু টুকরা বড় করে কাটা, ফুলকপি টুকরো, গাজর টুকরো ,মটরশুঁটি সব সবজি মিলিয়ে আধা কেজি

বাসমতি / চিনিগুড়া চাল ২ কাপ

ঘি / তেল ৪ টেবিল চামচ

পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ

আদা বাটা ২ চা চামচ

রসুন বাটা ২ চা চামচ

টক দই ৪ টেবিল চামচ

জয়ফল ও জয়ত্রী গুঁড়ো ৩ চা চামচ

পোস্ত বাটা ১ চা চামচ

গরম মসলা গুঁড়ো ২ চা চামচ

এলাচি ৪- ৫ টি

দারুচিনি ২ স্টিক

কাঁচামরিচ বাটা ১ চা চামচ

বেরেস্তা ১ কাপ

লবণ স্বাদ মত

প্রনালি
একটা বাটিতে টক দই এর সাথে হাফ কাপ বেরেস্তা, আদা রসুন বাটা, জায়ফল ,জয়ত্রী গুঁড়ো, পোস্ত বাটা আর গরম মশলা গুঁড়ো দিয়ে মেখে রাখুন।

-অন্য একটা পাত্রে চাল সিদ্ধ করে পানি ঝরিয়ে নিন। চাল বেশি সিদ্ধ করবেন না। বেশি সিদ্ধ হলে বিরিয়ানি ঝরঝরে হবে না।

-এবার অন্য প্যানে তেল/ ঘি দিয়ে তাতে পেঁয়াজ কুচি দিন। একদম লাল করে বেরেস্তার মত করে ভেজে নিন, সবজি দিয়ে কষান ৫ মিনিট। এরপর সাথে মেখে রাখা দই আর কাঁচামরিচ বাটা দিয়ে রান্না করুন ১০ মিনিট।

-সবজি কষে আসলে বেরেস্তা ছিটিয়ে রান্না করুন আরো ২ থেকে ৩ মিনিট।

-এবার এই কষিয়ে রাখা সবজির উপরে রান্না করা চাল দিয়ে দিন , আর কিছু বেরেস্তা ছিটিয়ে দিন ।

-এবার ফয়েল পেপার দিয়ে ভালোভাবে মুড়ে/ ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন যেন ভাপ না বের হতে পারে । তাওয়ার উপর অল্প আঁচে বসিয়ে দমে দিয়ে দিন ৪০ মিনিটের জন্য। চাইলে ওভেনেও বেক করে নিতে পারেন।

-পরিবেশন এর সময় আলতো করে নাড়াচাড়া করে নিচের সবজির সাথে মিশিয়ে নিন , খুব বেশি নাড়াচাড়া করলে চাল ভেঙে যায় , পোলাও ঝরঝরে থাকে না । ধনেপাতা ছিটিয়ে পরিবেশন।